২৬শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:০৩

কুষ্টিয়ায় অপহরণের পর স্কুল ছাত্রকে হত্যা, কাঠের বাক্স থেকে লাশ উদ্ধার

ভেড়ামারায় অপহরনের একদিন পর প্রতিবেশির ঘরে কাঠেরবাক্স থেকে পুলিশ আসিফ হোসেন নামে এক ৭ম শ্রেনীর স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় নিহতের প্রতিবেশি মিশুক আলীর বাড়ী থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গলায় তার দিয়ে পেচিয়ে হত্যা কওে মিশুক আলীর বাড়ীর একটি ঘরের ভেতওে বড় কাঠের বাক্সের মধ্যে কাথা দিয়ে জড়িয়ে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। নিহত আসিফ হোসেন (১৪) ভেড়ামারা উপজেলার ধরমপুর গ্রামের কুতুব উদ্দীনের ছেলে। নারী ঘটিত বিষয়ে আসিফ হত্যা হতে পাওে বলে ধারনা করছে পুলিশ।

কুুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূর-ই-আলম সিদ্দিকী জানান, রোববার আসিফের স্কুলে পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা না দিয়ে বেলা এগারটায় সে বাড়ি থেকে বের হয়। বিকেল হয়ে গেলেও সে বাড়ি ফিরেনা। অনেক খোঁজা খুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
সন্ধ্যায় আসিফের বাবার কাছে মোবাইলে মুক্তিপন বাবদ ৫০ হাজার টাকা চাওয়া হয়। বিষয়টি আসিফের বাবা কুতুব উদ্দিন ভেড়ামারা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। জিডির পওে মাঠে নামে পুলিশ। বিভিন্ন সূত্র ও তথ্যের ভিত্তিতে এবং টেকনোলোজি ব্যবহার কওে পুলিশ মিশুক আলীর বাড়ী থেকে আসিফ এর লাশ উদ্ধার করে। এ সময় মিশুক ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক ছিল। মিশুককে ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

 

ময়না তদন্তের জন্য লাশ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালমর্গে পাঠানো হয়েছে।
মিশুক ধরম পুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র।