২৬শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:০৫

একই আসনে আর একজন এমপি পেতে যাচ্ছেন কুষ্টিয়ার জনগণ

জেলা কোটায় সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে যাচ্ছেন কুষ্টিয়ার খোকসা-কুমারখালী আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সুলতানা তরুণ। আর এই আসনে তিনি সাংসদ হলে একই পরিবার থেকে একাদশ জাতীয় সংসদে দু’জন প্রতিনিধিত্ব করবেন। এ নিয়ে খোকসা-কুমারখালী উপজেলা দুইটির সাধারণ মানুষের মধ্যে আগ্রহের শেষ নেই।

 

গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসন থেকে তার ভাতিজা সেলিম আলতাফ জর্জ দলীয় মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হোন। সুলতানা তরুন মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক গোলাম কিবরিয়ার পুত্রবধু ও সাবেক সাংসদ আবুল হোসেনের স্ত্রী। অপর দিকে সেলিম আলতাফ জর্জ গোলাম কিবরিয়ার দৌহিত্র।

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুষ্টিয়ার চারটি আসনের একমাত্র নারী মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন সুলতানা তরুণ। স্বামী আবুল হোসেন তরুণের মৃত্যুর পর ২০০১ সালে কুষ্টিয়া-৪ আসনের দলীয় মনোনয়ন পান তিনি। সে সময় দশম জাতীয় সংসদের সাংসদ আব্দুর রউফ বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করায় আওয়ামী লীগের ভরাডুবি হয়। ২০০৮ সালে পুনরায় সুলতানা তরুণকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। যদিও ২০১৪ সালের একতরফা নির্বাচনে তাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়নি।

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর মন্ত্রিসভা গঠন নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সংরক্ষিত মহিলা আসনের মনোনয়ন নিয়েও চলছে নানা গুঞ্জন। সংসদের প্রথম অধিবেশনেই সংরক্ষিত আসনে এমপিদের যোগদান নিশ্চিত হতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলের যোগ্য ও ত্যাগী নেত্রীদের সমন্বয়ে একটি তালিকাও তৈরি করছেন।

 

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের সংরক্ষিত আসনে আসতে পারে ব্যাপক রদবদল। ফলে মন্ত্রিসভা গঠনে পর এবার সংরক্ষিত নারী আসনে এমপিদের চূড়ান্ত নিয়োগ নিয়ে থাকছে চমক। সংসদের প্রথম অধিবেশনেই এ চমক দেখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে দশম জাতীয় সংসদের মতো বেশি সময় না-ও লাগতে পারে।

 

আগের (দশম) সংসদে সংরক্ষিত আসনের এমপিদের থেকে এবার অধিকাংশই বাদ পড়তে পারেন বলে জানা গেছে। এতে জেলা কোটা সমন্বয় করতে গিয়ে তারা বাদ পড়তে পারেন বলে জানায় সংশ্লিষ্ট সূত্র।