২৫শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ১১ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:৪০

আলাউদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠান নিয়ে রাজনৈতিক মহলে অসন্তোষ

লিপু খন্দকার ঃ উপজেলার বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানটি অনিয়ম ও অসংগতির মধ্যে দিয়ে পালিত হয়েছে ।

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার বাগুলাট ইউনিয়নের বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্ত মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি।

বর্ণাঢ্য আয়োজনে রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানটির ভিতরে ভিতরে প্রস্তুতি চলছে প্রায় ৬ মাস ব্যাপী। অথচ কুষ্টিয়ার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সংসদ সদস্য সরোয়ার জাহান বাদশা বা সংসদ সদস্য ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ কাউকেই জানানো হয়নি এমনই সংবাদ চাউর হয়েছে রাজনৈতিক অঙ্গনে।

সরকার দলীয় বা শীর্ষস্থানীয় কোন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব যেকোন জেলা বা উপজেলায় প্রবেশের পূর্বে অত্র এলাকার সংসদ সদস্যকে অবহিত করবে এটাই স্বাভাবিক কিন্তু বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জের অনুমতি না নিয়ে তাকে বিশেষ অতিথি করা এবং অপর চিঠিতে তার নাম না দেয়ার বিষয়টি রাজনৈতিক মহল এবং সাধারণ জনগণ ভালো চোখে দেখেননি এটি উল্লেখিত কলেজের ম্যানেজিং কমিটির ষড়যন্ত্রের একটি অংশ বা সংসদ সদস্যকে অবমূল্যায়ন করার অপপ্রয়াস বলে অনেকে মন্তব্য করেছেন।

উল্লেখ্য এই অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়া ৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জকে কোন চিঠি দেওয়া হয় নাই এমনটাই জানিয়েছেন কুষ্টিয়া ৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জের পিএস ইঞ্জিনিয়ার জহির উদ্দিন তাজু।