২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং | ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | রাত ১২:৩৪

আদিবাসীরা প্রাপ্য অধিকার থেকে একবিন্দু বঞ্চিত হবেনা- জর্জ এম,পি

মিজানুর রহমান নয়ন,কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ঃ কুষ্টিয়া-০৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন,আদিবাসীরা পূর্বপুরুষ হতে যুগ যুগ ধরে বসবাস করে আসছে এখানে।তারা তাদের প্রাপ্য অধিকার থেকে একবিন্দু বঞ্চিত হবেনা।কেউ আদিবাসীদের ভূমি বেদখল করার চেষ্টা করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কুমারখালী মহিলা কলেজের বাণিজ্য বিভাগের প্রভাষক ও ভূমিদস্যু তুহিনুর রহমান তুহিন কর্তৃক পৌরসভার বুজরুক দুর্গাপুর মৌজার আদিবাসী বাগদি সম্প্রদায়ের আদি ভিটার জমি দখল ও উচ্ছেদের হুমকি প্রদান বিষয়ক অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার সকালে পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা যেখানে প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার বাস্তবায়নে দিনরাত নিরলস কাজ করছে, সেখানে ভূমিদস্যুদের কোন পায়তারা সহ্য করা হবেনা।তিনি আরো বলেন,খুব অল্প সময়ের মধ্যে আদিবাসীদের নির্ধারিত জায়গা পাকা সীমানা প্রাচীর দিয়ে নির্ধধারন করা হবে।প্রয়োজনে তাদের বর্ধিত জমির ব্যবস্থা করা হবে।

এসময় কুমারখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দিন খান তারেক,পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আক্তারুজ্জামান নিপুন,উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হারুন অর রশিদ,পৌরসভার ৫ নং কাউন্সিলর এস এম রফিক,আদিবাসী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মদন সহ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আদিবাসী পল্লীতে সংসদ সদস্যের আগমন উপলক্ষ্যে বাগদি সম্প্রদায় নানাবিদ সমস্যার কথা তুলে ধরে আবেগে আপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন।

জানা যায়,গত ১৫ জানুয়ারি বুধবার কুমারখালীর সংখ্যালঘু বিলুপ্ত প্রায় বাগদি সম্প্রদায়ের শত বছরের একমাত্র বসতভিটা দখলের অপচেষ্টা করে মহিলা কলেজের বানিজ্য বিভাগের শিক্ষক তুহিনুর রহমান তুহিন বিশ্বাস। বাগদি সম্প্রদায়ের বাধার মুখে তুহিন বিশ্বাস সাময়িকভাবে পালিয়ে গেলেও পুনরায় সংঘবদ্ধ হয়ে তাদেরকে উচ্ছেদের চেষ্টা করলে বাগদি সম্প্রদায় ঝাঁটাপেটা করে তাড়িয়ে দেয় এবং প্রদিবাদে বাগদি সম্প্রদায়ের চার শতাধিক মানুষ কুষ্টিয়া টু রাজবাড়ি সড়কে মানববন্ধন শেষে প্রায় তিনঘণ্টা ধরে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে ও উপজেলা সহাকারি কমিশার (ভূমি) অফিসের সামনে ঘণ্টাব্যাপী অনুশন করে।