১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং | ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৪২

আবারও পর্দায় সাব্বির-মিলি,যেখানে একে-অপরের নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বী

বিনোদন ডেস্কঃ- হাসনাত একজন ডিম ব্যবসায়ী। অন্য দিকে জবা একটি ইউনিয়নের পরপর পাঁচবার বিজয়ী চেয়ারম্যানের মেয়ে। এক সময় সিদ্ধান্ত হয় যে হাসনাত ও জবার বিয়ে হবে; কিন্তু ঠিক বিয়ের আগ মুহূর্তেই অসুস্থ হয়ে যায় জবার বাবা ফজলুর রহমান বাবু। বাবা তার মেয়েকে আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দাঁড়াতে বলে। অন্য দিকে হাসনাতও চেয়ারম্যান পদে দাঁড়ায়।

শুরু হয় হাসনাত ও জবার মধ্যে নির্বাচনী দ্বন্দ্ব। এগিয়ে যায় ‘কাগজের ফুল’ ধারাবাহিক নাটকের গল্প। মারুফ রেহমানের রচনায় নাটকটি নির্মাণ করেছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল। আর এই নাটকের গল্পে হাসনাত চরিত্রে মীর সাব্বির এবং জবা চরিত্রে অভিনয় করছেন ফারহানা মিলি।

 

এরই মধ্যে এনটিভিতে নাটকটির প্রচার শুরু হয়েছে। পেয়েছে দর্শকপ্রিয়তাও। নাটকটিতে আরো অভিনয় করছেন সাজু খাদেম, স্বাগতা, রাশেদ মামুন অপু, সাবেরী আলম, এফ এস নাঈম, উর্মিলা শ্রাবন্তী করসহ আরো অনেকে।

 

সপ্তাহের প্রতি বুধ ও বৃহস্পতিবার রাত ৯টা ৪০ মিনিটে এনটিভিতে নাটকটি প্রচার হচ্ছে নিয়মিত। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে মীর সাব্বির বলেন, ‘নাটকটির গল্প ব্যতিক্রম, লোকেশনে ভিন্নতা আছে, নির্মাতা হিসেবে নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল বেশ মেধাবী একজন নির্মাতা। পাশাপাশি খুব ভালো একটি নাটক বলেই এনটিভির মতো একটি চ্যানেলে নাটকটি প্রচার হচ্ছে। আমার সহশিল্পী হিসেবে ফারহানা মিলিও বেশ চমৎকার একজন অভিনেত্রী। তার সাথে কাজটি আমি বেশ উপভোগ করছি।’

 

ফারহানা মিলি বলেন, ‘নেয়ামুল ভাইয়ের নির্দেশনায় এর আগেও কাজ করেছি। তিনি সবসময়ই শিল্পীদের আরাম দিয়ে বেশ যত্ন নিয়ে কাজ করেন। আর একটি কথা বিশেষত বলতেই হয়, সেটে যখন মীর সাব্বির ভাই থাকেন তখন অনেক মজা করতে করতেই কাজটি বেশ ভালোভাবে শেষ হয়ে যায়।

 

এই নাটকে আমরা সবাই বেশ আনন্দের মধ্যদিয়েই কাজটি করছি। দেখা যায় যে এই ধরনের ধারাবাহিক শেষ হয়ে গেলে মনটাও খারাপ হয়ে যায়। কারণ নাটকের জন্য যেমন দর্শকের কাছ থেকে সাড়া পাই। ঠিক তেমনি শিল্পীদেরকেও খুব মিস করি।’ এ দিকে মীর সাব্বির নির্দেশিত ধারাবাহিক ‘নোয়াশাল’ আরটিভিতে নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। অন্য দিকে ফারহানা মিলি এস এম শাহীনের ‘সোনাভান’ ও সঞ্জিত সরকারের ‘মজনু একজন পাগল নহে’ ধারাবাহিকে নিয়মিত অভিনয় করছেন।